1. admin@newsbayanno24.com : admin :
  2. mdrockykhan1996@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ফুটবল বিশ্বকাপে রেকর্ডের আতুড়ঘর ব্রাজিলের নতুন রেকর্ড লৌহজংয়ে শহিদুল ইসলাম বেপরী স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টে ফাইনালে হলদিয়া লিটল স্টার ১-০ গোলে জয়ী লৌহজংয়ে জামে মসজিদ কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে হামলা আহত-৬ একনজরে ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ কাতার ২০২২ এর ফিক্সচার মারাত্মক ইনজুরির কারণে গ্রুপ পর্বের খেলা থেকে ছিটকে গেলেন নেইমার সার্বিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের ২-০ গোলের জয় ফুটবল বিশ্বকাপে ১ম ম্যাচে গোল করে ২য় সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা হলেন স্পেনের গ্যাভি কোস্টারিকাকে গোল বন্যায় ভাসালেন স্পেন জার্মানিকে ২-১ গোলে উড়িয়ে দিলো এশিয়া পরাশক্তি জাপান অস্ট্রেলিয়াকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করলো পরাশক্তি ফ্রান্স

সিলেটে দিনে রাতে বেশিরভাগ সময়ে বিদ্যুৎ নেই, ক্ষুব্ধ হয়ে যাচ্ছে সাধারণ মানুষ

আবুল কাশেম রুমন, সিলেট সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১২ অক্টোবর, ২০২২
  • ৪৫ বার পঠিত

সিলেট জুড়ে দিনে ও রাতের অর্ধেক সময় অন্ধকারে সময় কাটাতে হচ্ছে সিলেটের মানুষদের। যত সময় গড়াচ্ছে ক্ষোভের দানা বাধছে সাধারণ মানুষের মাঝে। অনেক সামাজিক সংগঠন ও বিদ্যুৎ লোডশেডিং এর বিরুদ্ধে আন্দোলনের জন্য সুর উঠাচ্ছেন। কিন্তু সিলেটে চাহিদার দুই তৃতীয়াংশ বিদ্যুত পাচ্ছে সিলেটের বিদ্যুত বিভাগ। এতে এক তৃতীয়াংশ সময় লোডশেডিং করতে হচ্ছে। এছাড়া তীব্র গরমে সিলেটে বর্তমানে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়েছে। ফলে লোডশেডিংয়ের কারণে সিলেটের মানুষের জীবনযাত্রা অহসনীয় হয়ে উঠেছে।
সিলেট বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার থেকে বিকেল ৩টায় সিলেট জোনের ৮টি গ্রিডে বিদ্যুতের চাহিদা ছিল ৪৮২ দশমিক ৬ মেগাওয়াট। তবে সরবরাহ ছিল ৩২০ দশমিক ৭ মেগাওয়াট। এ হিসেবে ঘাটতি ছিল ১৬৩ দশমিক ৯ মেগাওয়াট।
বিদ্যুত বিভাগের তথ্যমতে, সিলেটে পিক আওয়ার বিকাল ৫টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত বিদ্যুতের চাহিদা প্রায় ৬৫০ থেকে ৬৬০ মেগাওয়াট। অফ পিক আওয়ারে এই চাহিদা ৪৫০ থেকে ৫০০ মেগাওয়াট। কিন্তু চাহিদা মতো বিদ্যুত মিলছে না।
দিনে ও রাতে সমান ভাবে লোডশেডিং হওয়ায় জন জীবনে এর প্রভাব পড়ছে। বিশেষ করে সেবা ও উৎপাদনশীল খাতে বিপর্যয় কাটছে না।
বিদ্যুত বিভাগ বলছে, জ্বালানি সংকটসহ নানা কারণে বেশ কিছু বিদ্যুত কেন্দ্রের উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। ফলে চাহিদার চেয়ে কম বিদ্যুত উৎপাদন হচ্ছে। যার কারণে লোডশেডিং বেড়েছে।
বাংলাদেশ বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালক (জনসংযোগ) শামীম হাসান বলেন, সোমবার থেকে দেশে সর্বোচ্চ বিদ্যুত উৎপাদন হয়েছে ১২ হাজার ৬৮৬ মেগাওয়াট। বিদ্যুতের চাহিদা ছিল ১৪ হাজার ২০০ মেগাওয়াট। বিদ্যুতের ঘাটতি ছিল এক হাজার ৫১৪ মেগাওয়াট। তিনি বলেন, বেশ কিছু কেন্দ্র বন্ধ থাকায় বিদ্যুত উৎপাদন কম হচ্ছে। যার কারণে বিদ্যুতের ঘাটতি বাড়ছে।
সিলেটের বিদ্যুৎ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গ্যাসের চাপ স্বল্পতা, ব্ল্যাক আউটের ঘটনার পর থেকে সতর্কতার সঙ্গে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে। যে পরিমাণ বিদ্যুৎ পাওয়া গেছে সেগুলোতে পর্যায়ক্রমে এলাকা ভিত্তিক সরবরাহ করা হচ্ছে। এছাড়া, পিক আওয়ারে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যায়। তীব্র গরমের কারণে ক’দিন ধরে চাহিদা বেড়েছে। ব্ল্যাক আউটের আগে পরিস্থিতি মোটামুটি সহনীয় ছিল। এখন যেহেতু গ্রিড বিপর্যয় হয়েছে, সে কারণে সব বিবেচনা করেই লোডশেডিং হচ্ছে। তবে তারা আশা করেন, শিগগিরই এ অবস্থা  থেকে উত্তোরণ ঘটানো সম্ভব হবে।
এদিকে, ঘণ্টায় ঘণ্টায় লোডশেডিংয়ের কারণে সিলেটে ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, সিলেটে তেমন উৎপাদনশীল খাত নেই। তবে-বিসিককেন্দ্রিক ক্ষুদ্র ও মাঝারি কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তবে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া ছাত্র ছাত্রীরা। বিদ্যুত সময়তো না থাকায় পড়ে লেখায় মারাত্মক ব্যাঘাত ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ নিউজ বায়ান্ন ২৪
Theme Customized BY LatestNews