1. admin@newsbayanno24.com : admin :
  2. mdrockykhan1996@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
লৌহজংয়ে আ’লীগের শোকাবহ আগস্ট মাসব্যাপী কর্মসূচি সূচনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী লৌহজংয়ে থানার নতুন ভবন ও ফায়ার সার্ভিসের নতুন স্টেশন উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী না.গঞ্জে আড়াইশ বিএনপি নেতাকর্মীর হাজিরা লৌহজংয়ে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ যাত্রী শূন্যতায় জীবিকা নির্বাহ অনিশ্চয়তায় ভুগছেন শিমুলিয়া ঘাটের ৫ হাজার বাস স্টাফ লৌহজংয়ে গাংচিল পরিবহন রাস্তা দখল করে বাস পার্কিং পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধের পর কমেছে টোল আদায়ের হার প্রস্তাবিত বাজেট দেশীয় লিফট উৎপাদন শিল্প বিকাশের পথ সুগম করবে’ শুদ্ধাচার পুরষ্কারে ভূষিত হলেন বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি পদ্মা সেতু উত্তর থানার এএসআই’র বিরুদ্ধে দর্শনার্থীদের সাথে খারাপ আচরণের অভিযোগ

পদ্মা সেতু রক্ষায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রটেক্টর অফ পদ্মা ব্রিজ

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০২২
  • ৩৮ বার পঠিত
২০১৩ সালে এক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রয়াত খ্যাতিমান প্রকৌশলী ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীর সঙ্গে আলোচনার সময় পদ্মা সেতু নির্মাণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে সম্পৃক্ত করার ব্যাপারে মত প্রকাশ করেন।
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রকৌশলীরা পার্বত্য চট্টগ্রামে অসংখ্য রাস্তা, কক্সবাজারে মেরিন ড্রাইভ, মিরপুর-এয়ারপোর্ট রোডে ফ্লাইওভার, জাতীয় মহাসড়ক, হাতিরঝিল প্রজেক্টসহ অনেক প্রকল্প সুচারুরূপে সম্পাদন করায় পদ্মা সেতু নির্মাণে সেনাবাহিনীর সম্পৃক্ততা অত্যন্ত যৌক্তিক বলে মনে করেন।
ফলে এই সেতু তৈরির প্রথম থেকেই সেতু-সংশ্নিষ্ট সব স্থাপনার নিরাপত্তা এবং গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শক হিসেবে সেতু বিভাগ কর্তৃক বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে নিয়োগ করা হয়।
মূল কাজ শুরুর ঠিক আগে পদ্মা সেতুর অ্যালাইনমেন্ট বরাবর নদীর ব্যাপক ভাঙন মোকাবিলায় সেতু বিভাগের অনুরোধে এগিয়ে আসে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর হাত ধরে ২০১৩ সালের ৮ অক্টোবর জাজিরা অ্যাপ্রোচ রোড শুরু করার মাধ্যমে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের নির্মাণকাজ মাঠ পর্যায়ে শুরু হয়।
তিনটি প্যাকেজের (জাজিরা ও মাওয়া অ্যাপ্রোচ রোড এবং সার্ভিস এরিয়া-২) জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আব্দুল মোনেম লিমিটেড-হাইওয়ে কনস্ট্রাকশন ম্যানেজমেন্ট এবং পরামর্শক হিসেবে কনস্ট্রাকশন সুপারভিশন কনসালট্যান্ট, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে নিযুক্ত করা হয়।
স্ট্র্যাটেজিক এই সেতুর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে বাংলাদেশ সরকার ২০১৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর ৯৯ কম্পোজিট ব্রিগেড নামে একটি নতুন ব্রিগেড গঠন করে, যার কার্যক্রম ২০১৪ সালের ১২ মার্চ থেকে শুরু হয়।
কৌশলগত কারণে স্ট্র্যাটেজিক এই সেতুর গুরুত্ব অপরিসীম। এর নিরাপত্তার জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৯৯ কম্পোজিট ব্রিগেডকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিলো, যাদের বলা হয়, ‘প্রটেক্টর অব পদ্মা ব্রিজ’।
এই ব্রিগেডটি ২০১৩ সাল থেকেই সেতু, সংশ্নিষ্ট জনবল, নানাবিধ স্থাপনা ও সেতুর নিচে বিস্তীর্ণ নৌপথের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে আসছে।
এই কাজে সম্পৃক্ত হয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জনগণের আস্থার প্রতীক হিসেবে নিজের অবস্থানকে সুদৃঢ় করেছে বলে মনে করেন নিযুক্ত সেনা সদস্যরা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ নিউজ বায়ান্ন ২৪
Theme Customized BY LatestNews