1. admin@newsbayanno24.com : admin :
  2. mdrockykhan1996@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১২:২২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নারায়ণগঞ্জে যুবদলে স্বপ্নভঙ্গ সজীবের ভাষা সৈনিক,বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ্ মোয়াজ্জেম হোসেনের ইন্তেকাল সিলেটে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত, জনমনে স্বস্তি সিলেটের কানাইঘাটে শ্রেণী কক্ষে শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় আসামি গ্রেফতার নাটোরে গণধর্ষণ ঘটনার সাড়ে ৪ ঘন্টার মধ্যে তিন ধর্ষক ও দুই সহযোগী আটক লৌহজং প্রেস ক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান ঝিলু স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী লৌহজংয়ে ব্রাহ্মণগাঁও বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের সেনা প্রধানদের গোলটেবিল বৈঠক সিলেটে ৫ দফার দাবিতে চলছে পরিবহন ধর্মঘট, ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ গাজীপুরে হলদে পাখি সম্প্রসারণ বিষয়ক ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান বর্জন মুক্তিযোদ্ধাদের একাংশের

লৌহজং ( মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৬ মার্চ, ২০২২
  • ১২০ বার পঠিত

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস অনুষ্ঠানে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন না করার অভিযোগ এনে অনুষ্ঠান বর্জন করেছেন মুক্তিযোদ্ধাদের একাংশ। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটে। অনুষ্ঠান বর্জন করা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার আলহাজ মো. সোলাইমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়- গত ১৭ মার্চ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল আউয়ালের সাথে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সোলায়মানের নেতৃত্বে একদল মুক্তিযোদ্ধা সাক্ষাৎ করেন। সে সময় মুক্তিযোদ্ধারা দাবি করেন- মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদেরই সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেওয়া উচিত। অনুষ্ঠানের দিন মঞ্চে সকল মুক্তিযোদ্ধার স্থান সংকুলান না হলে সভাপতি ও প্রধান অতিথি বাদে মুক্তিযোদ্ধারা মঞ্চের নিচে হলরুমে চেয়ারে অবস্থান করবে। এসব বিষয়ে তখন একমত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয় যে, রবিবার উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আয়োজিত স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে সেসব কথা রাখেননি ইউএনও মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল। বিজ্ঞপ্তিতে অভিযোগ করে বলা হয়- মুক্তিযোদ্ধাদের বিগত বাতিল কমিটির ১১ জন সদস্যসহ আরও কিছু লোক এবং তাদের দেওয়া তালিকা থেকে মাত্র ২ জন মুক্তিযোদ্ধাকে মঞ্চে ডেকে নেওয়া হয়। আর বাকিদের মঞ্চ ত্যাগের অনুরোধ করেন ইউএনও আউয়াল। তখন এ ঘটনার প্রতিবাদে উপজেলা চেয়ারম্যান ওসমান গনী তালুকদার, ভাইস চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তপন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান রিনা ইসলামের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান বর্জন করেন মুক্তিযোদ্ধারা।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সব দাবি মানা সম্ভব হয়নি। কারণ, তাঁদের মধ্যে কয়েকটি গ্রুপ রয়েছে। তাছাড়া বিশিষ্ট ও নেতৃস্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের পরামর্শে প্রতিবারের ন্যায় এ বছরের মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সাজানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ নিউজ বায়ান্ন ২৪
Theme Customized BY LatestNews